দরিদ্র কৃষকের ধান কেটে দিলো ময়মনসিংহ জেলা ছাত্রলীগ নেতা শাওন

রোজার মাঝে দরিদ্র কৃষকের ধান কেটে দিলো ময়মনসিংহ জেলা ছাত্রলীগ নেতা শাওন
ময়মনসিংহ প্রতিনিধিঃ ময়মনসিংহে বৈরী আবহাওয়া বৈশাখী ঝড়ে হেলে পড়েছে  আবাদকৃত কৃষকের ধান। এতে আবাদকৃত ধান নিয়ে দুঃচিন্তায় কৃষক।  করোনায় শ্রমিক সংকট আর অর্থাভাবে পাকা ধান কাটা এবং সেগুলো ঘরে তোলা নিয়ে দিশেহারা কৃষক পরিবার। এমন সংকটময় সময়ে পাশে দাঁড়িয়েছেন ময়মনসিংহ জেলা ছাত্রলীগ নেতা ও আনন্দ মোহন কলেজ ছাত্রলীগের সদ্য সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক এস এম নাফিদুল জান্নাত শাওন। সংকটময় সময়ে হাল ছেড়ে দেয়া এমনই একজন কৃষক আবুল হাসেম মিয়া। তারই পাশে দাড়িয়েছে শাওন ।

তারই উদ্যোগে ময়মনসিংহ নগরীর (৩১ নং ওয়ার্ড) কল্পা বিশ্ব রোড় সংলগ্ন এলাকায় আবুল হাসেম নামক এক অসহায় কৃষকের ধান ক্ষেতের প্রায় ৫০ শতাংশ জমির পাঁকা ধান কেটে ঘরে তুলে দেন ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা।অসহায় কৃষকের দু্ঃখে ব্যথিত হয়ে ধান কাটাকালীন সময়ে শাওন জানান,বাংলাদেশ ছাত্রলীগ এদেশের মানুষের প্রয়োজনে জন্ম নেওয়া একটি ছাত্র সংগঠন।

দেশের মা মাটি মানুষের দুর্যোগে দুর্ভোগে কাজ করার আদর্শিক ইচ্ছায় তেজোদৃপ্ত সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ।বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার নির্দেশে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের বিভিন্ন কর্মসূচীর অংশ হিসেবে ময়মনসিংহ মহানগর আওয়ামী লীগের সুযোগ্য সাধারণ সম্পাদক মোহিত উর রহমান শান্তর সার্বিক তত্ত্বাবধানে ময়মনসিংহ জেলা ছাত্রলীগ অসহায় দরিদ্র কৃষকের ধান কাটার কর্মসূচি  হাতে নেয়।

কৃষকের ধান ঘরে না পৌছাঁনো পর্যন্ত দেশরত্ন শেখ হাসিনার নির্দেশে এভাবেই ছাত্রলীগ মাঠে থাকবে বলে জানিয়েছেন তিনি।তারা সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত দল বেঁধে সামাজিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে ধান কাটেন। পরে জমি থেকে ধান নিয়ে ওই কৃষকের ধানের গোলায় রেখে আসেন। মহামারী করোনাকালে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের এমন সহযোগীতায় সন্তোষ প্রকাশ করেন কৃষক আবুল হাসেম  মিয়া। দেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনায় অসহায় কৃষকের পাশে এগিয়ে আসা ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের প্রতি তিনি কৃতজ্ঞতা জানান।