রেগে আগুন নবজাতক চিকিৎসকেরা অবাক

নবজাতক সেই শিশু কন্যার নাম ইসাবেলা পেরেরা ডি জিসাস
নবজাতক সেই শিশু কন্যার নাম ইসাবেলা পেরেরা ডি জিসাস

জন্মের পর সকল নবজাতকই কাদেঁ এটা স্বাভাবিক ব্যপার আর না কাদঁলে সবাই কাঁদানোর চষ্টা করে ।কিন্তু সদ্য কোনো নবজাতক জন্মানোর পরেই না কাঁদায় চিকিৎসকেরা চেষ্টা করেন তাকে কাঁদাতে। নবজাতকের ফুসফুস সঠিকভাবে কাজ করছে কি-না তা জানতেই এই চেষ্টা করা হয়ে থাকে। কিন্তু এক নবজাতককে কাঁদানো চেষ্টা করতে গিয়ে বিপাকে পড়েছেন চিকিৎসকেরা! রেগে আগুন ওই নবজাতক।

জানা যায়, ১৩ ফেব্রুয়ারি ব্রাজিলের রিও ডি জেনিরোর একটি হাসপাতালে জন্ম হয় এক শিশু কন্যার। জন্মের পর থেকেই তাকে কাঁদাতে পারেননি চিকিৎসকেরা। তার অ্যাম্বিক্যাল কর্ড কাটার আগে থেকেই চিকিৎসকেরা তাকে কাঁদানোর চেষ্টা করেন। উল্টে চিকিৎসকদের দিকে রাগী মুখে তাকিয়ে থাকে নবজাতক। নবজাতকের এই ছবিই ভাইরাল হয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

অভিভাবকরা নবজাতক সেই শিশু কন্যার নাম ইসাবেলা পেরেরা ডি জিসাস। রিও ডি জেনিরোর সংলগ্ন সেই হাসপাতালের চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, এর আগে কোনো নবজাতকের এমন অভিব্যক্তি তারা দেখার সুযোগ দেখেনি। তাই এই বিরল দৃশ্য ঘটনাস্থলেই ক্যামেরাবন্দি করেন নবজাতকের বাবা। 

নবজাতকের বাবা পেশায় ফটোগ্রাফার, নাম রড্রিগো কুনস্টম্যান। তাকে কাঁদানোর চেষ্টায় ইসাবেলার এই অভিব্যক্তিতে হতবাক সকল চিকিৎসক। জানা গেছে, অ্যাম্বিক্যাল কর্ড কাটার পরে কাঁদতে শুরু করেছিল এই ‘রাগী’ শিশু কন্যা।