ময়মনসিংহে বেসরকারি কলেজ অনার্স-মাস্টার্স শিক্ষক ফোরামের সংবাদ সম্মেলন

কাউছার পারভেজ শাকিলঃ ময়মনসিংহে বাংলাদেশ বেসরকারি কলেজ অনার্স-মাস্টার্স শিক্ষক ফোরামের উদ্যোগে গত ২২ জুন দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

শিক্ষক সংগঠনটি অনার্স-মাস্টার্স শিক্ষকদের জন্য জনবল কাঠামো সৃষ্টি করে দ্রুতই ২০১৮ জনবল কাঠামোতে অন্তর্ভুক্ত হতে জোর দাবি জানান। দীর্ঘ দিন ধরে জেলা প্রশাসক, সাংসদ, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ভিসি মহোদয় কে চিঠি, স্মারকলিপি ও আন্দোলন, সংগ্রাম, রিট করেও জনবল কাঠামোয় অন্তর্ভুক্ত হতে পারছে না কোন এক অদৃশ্য শক্তির কারনে। বেতনহীন বা নামমাত্র বেতনে কষ্টে দিনাতিপাত করছে অধিকাংশ শিক্ষকবৃন্দ। যা উচ্চ শিক্ষা বিস্তারের জন্য বড় বাঁধা এবং শিক্ষকদের এমপিও ভুক্ত হতে প্রধান অন্তরায়।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের একাধিক বার নির্দেশ থাকার পরও জনবল কাঠামোর কমিটির সম্মতি, স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদের ও বাকশিস সহ বিভিন্ন শিক্ষক সংগঠনের সম্মতি, গবেষক, শিক্ষা টিভির সম্মতি থাকার পরও জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি উক্ত দাবিটির প্রতি উদাসীন।

কথা বলেন যা অত্যান্ত অযোক্তিক ও উচ্চ শিক্ষা উন্নয়নের ক্ষেত্রে সর্বনাশ ডেকে আনবে বলে শিক্ষকরা মর্মাহত। তাই শিক্ষক সংগঠনটি এই অসহযোগিতা ও তাদের জনবলে কাঠামোতে অন্তর্ভুক্ত হতে জনবল কাঠামো কমিটিকে অসহযোগিতার জন্য জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি‘র পদত্যাগ দাবী করেন। দ্রুতই ৫৫০০ শিক্ষককে জনবল কাঠামোতে অন্তর্ভুক্ত করতে জোর দাবী জানান। শিক্ষকদের প্রতি সদয় হবেন এবং শিক্ষকগন তাদের পদত্যাগ দাবি প্রত্যাহার করবেন। অন্যথায় শিক্ষা বান্ধব সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও মাননীয় শিক্ষা মন্ত্রীর কাছে ২৮ বছরের উপেক্ষিত দাবি নিয়ে হাজির হবেন। শিক্ষকরা বিশ্বাস করেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যখন বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ২৬ হাজার শিক্ষক,ইবতেদায়ি মাদ্রাসা, কারিগরি শিক্ষকসহ অসংখ্য দাবি দ্রুততম সময়ে বাস্তবায়ন করেছে।

সুতরাং উচ্চ শিক্ষা অনার্স- মাস্টার্সে মাত্র ৫৫০০ শিক্ষকদের দাবী মানার জন্য আহবান জানান। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ময়মনসিংহ জেলার বিভিন্ন কলেজের শিক্ষকবৃন্দ। কেন্দ্রীয় লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় যুগ্ম আহ্বায়ক ও জেলা সভাপতি মাসুম বিল্লাল। এ সময়ে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় সদস্য ও জেলা কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক রাকিবুল হাসান,কেন্দ্রিয় সদস্য ও কলেজ সভাপতি জিল্লুর রহমান, জেলা সিনিয়র সহ-সভাপতি কামরুল ইসলাম, নাজমুল হক,মাহফুজুর রহমান,দেলোয়ার হোসেন,মাহফুজুল হক, জাহিদুর রহমান,ইলিয়াস কাঞ্চন, জেলা সদস্য নইম, জাকিয়া ও মারজিয়া আক্তার প্রমূখ।