ময়মনসিংহে প্রতিদ্বন্দ্বি হীন নির্বাচনে সিটি মেয়র হবেন টিটু

ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় মেয়র নির্বাচিত হচ্ছেন আওয়ামী লীগের প্রার্থী মো: ইকরামুল হক টিটু।জাতীয় পার্টির প্রার্থী জাহাঙ্গীর আহমদ আওয়ামী লীগের প্রার্থী মো: ইকরামুল হক টিটুকে সমর্থন জানিয়ে প্রার্থিতা প্রত্যাহার করার ঘোষণা দেওয়ায় তিনি নির্বাচিত হচ্ছেন।

মঙ্গলবার(১৬ এপ্রিল) বিকালে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি আনুষ্ঠানিকভাবে এই সিদ্ধান্তের কথা জানান।এই ঘোষণার ফলে এখন নির্বাচনে একক প্রার্থী থাকায় আওয়ামী লীগের প্রার্থী ইকরামুল হক টিটু বিনা প্রতিদন্দিতায় নির্বাচিত মেয়র হতে যাচ্ছেন।সংবাদ সম্মেলনের শেষে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ইকরামুল হক টিটু দলটির নেতা-কর্মীদের সঙ্গে নিয়ে সেখানে উপস্থিত হন। পরে দু’জন ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশনের উন্নয়নে একযোগে কাজ করারও ঘোষণা দেন।

সংবাদ সম্মেলনে জাহাঙ্গীর আহমেদ বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আসন্ন ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ইকরামুল হক টিটুকে নৌকার প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা করেছেন। সেজন্য প্রধানমন্ত্রীর সিদ্ধান্তকে শ্রদ্ধা জানিয়ে ও মহাজোটের স্থানীয় রাজনীতির সহাবস্থানের প্রতি সমর্থন জানিয়ে আমার প্রার্থিতা প্রত্যাহার করে নিলাম।

তিনি বলেন, আমাদের নেত্রী রওশন এরশাদ ময়মনসিংহের উন্নয়ন প্রশ্নে মহাজোটের সকল শরীকদের ঐক্যবদ্ধ উন্নয়ন প্রচেষ্টা প্রয়োজন উপলব্ধি করেছেন। প্রধানমন্ত্রীর প্রতি তার শ্রদ্ধা স্বরূপ নৌকার মনোনীত প্রার্থীর প্রতি সমর্থন জানানোর ইচ্ছা ব্যক্ত করেছেন। এসব কারণে ইকরামুল হক টিটুকে সমর্থন নিয়ে নিজের প্রার্থিতা প্রত্যাহার করলাম।

নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানো এই প্রার্থী বলেন, আমি দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি ময়মনসিংহের উন্নয়ন প্রশ্নে যত বাঁধা-বিপত্তি রয়েছে সেগুলো দূর করতে আমাদের নেত্রী রওশন এরশাদসহ মহাজোটের সকল স্থানীয় মন্ত্রী, এমপিসহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ সর্বোচ্চ আন্তরিকতার সঙ্গে কাজ করে নবজাগরণ সৃষ্টি করতে সক্ষম হবেন।

এ সময় জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি অ্যাডভোকেট জহিরুল হক খোকা, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল, মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি এহতেশামুল আলম, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আমিনুল হক শামীম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।