ময়মনসিংহে করোনায় মৃত ব্যক্তির লাশ গোপনে দাফন

করোনা আক্রাক্ত মৃত ব্যক্তিকে যেভাবে দাফন করা হবে
প্রতিকী ছবি।

ত্রিশাল প্রতিদিন ডেস্ক:: করোনাভাইরাসে মৃত ময়মনসিংহের এক ব্যক্তির লাশ বুধবার গোপনে তার পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। এতে স্থানীয় লোকজনের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে।

দৈনিক কালেরকণ্ঠে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে জানাযায়, ঢাকায় বসবাসরত উপজেলার পশ্চিম গোলাবাড়ি গ্রামের করোনাভাইরাসে মৃত এক ব্যক্তির(৭০) লাশ বুধবার ভোরে গোপনে গফরগাঁওয়ের পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়।

এদিকে গফরগাঁও উপজেলার লংগাইর ইউপি চেয়ারম্যান জানান, নিহতের নাম সোহরাব উদ্দিন, পিতার নাম শামসুদ্দিন। তার তিন মেয়ে ডাক্তার। এক মেয়ে যুক্তরাষ্ট্রে থাকতো। ওই মেয়ে দেশে আসলে তার কাছ থেকেই তিনি সংক্রমিত হন।

এব্যাপারে লংগাইর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল আমিন বিপ্লব জানান, মৃত সোহরাব ঢাকায় মারা যান। গত পরশুদিন রাতে ঢাকা থেকে অ্যাম্বুলেন্স করে সোহরাবের লাশ গ্রামের বাড়িতে দাফন করা হয়। তার কোন ছেলে নেই। তিন মেয়ে আছেন।

এদিকে গফরগাঁওয়ে গত ১৬ মার্চ পর্যন্ত বিদেশ থেকে চার শতাধিক ব্যক্তি এলাকায় ফিরেছেন। তাদের নাম-ঠিকানা স্থানীয় প্রশাসন ও স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের হাতে না থাকায় হোম কোয়ারেন্টাইনের আওতায় আনা সম্ভব হচ্ছে না। অনেকেই অবাদে চলাফেরা করছেন। তবে মাঠ পর্যায়ের স্বাস্থ্যকর্মীরা বিদেশফেরত ব্যক্তিদের নাম-ঠিকানা সংগ্রহের চেষ্টা করছেন।

এ বিষয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদ মাইন উদ্দিন খান বলেন, বিদেশফেরত ৪০৮ জনের নাম-ঠিকানা সংগ্রহ করে তাদের হোম কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত করার জন্য মাঠ পর্যায়ের স্বাস্থ্য কর্মীদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী মাহবুব উর রহমান বলেন, বিদেশ থেকে কোনো প্রবাসী এলাকায় ফিরে এলেই প্রশাসন ও স্বাস্থ্য বিভাগকে অবহিত করার জন্য স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও গ্রাম পুলিশদের নির্দেশনা দেওয়া আছে।