মেয়ে কর্তৃক নির্যাতিত সেই মায়ের পাশে এসপি

কামরুজ্জামান মিনহাজঃ আমেরিকা প্রবাসী মেয়ে কর্তৃক নির্যাতিত সেই গর্ভধারিনী মা আয়শা হাবিব বিলকিসের পাশে দাঁড়ালেন ময়মনসিংহের জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) মোহাঃ আহমার উজ্জামান, পিপিএম-সেবা।

শুক্রবার ময়মনসিংহ জেলা গোয়েন্দা শাখার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শাহ্ কামাল আকন্দ পিপিএম (বার) মাধ্যমে আয়শা হাবিব বিলকিসের গফরগাঁওয়ের রসুলপুরের বাড়িতে ৩ মাসের খাবার, ঘুমানোর জন্য খাট, আসবাবপত্র, চাল, তেল থেকে শুরু করে জীবন চলার আনুসাঙ্গিক সবকিছু পোঁছে দেন ।

প্রসঙ্গত. ২৩ জুন বিডি২৪ লাইভ ডটকমে সংবাদটি প্রকাশিত হয় ‘ মেয়ের বিরুদ্ধে মায়ের যত অভিযোগ’ শিরোনামে সংবাদ সংবাদ প্রকাশের পর ব্যাপক সমালোচনার ঝড় ওঠে। আয়শা হাবিবা বিলকিস বিষয়টি অবগত করেন জেলা পুলিশ সুপারকেও । ভাগ্যের নির্মম পরিহাস ও অবেহলার শিকার সেই মায়ের অসহায়ত্বের কথা শুনে আবেগে আপ্লুত হন এসপি মোহাঃ আহমার উজ্জামান । পরে আয়শা হাবিবা বিলকিসের যাবতীয় সহযোগীতায় এগিয়ে আসেন এসপি । পাষন্ড মেয়ে মোছাঃ হাবিবা খাতুন মুন্নির বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করার প্রতিশ্রুতি দেন পুলিশ সুপার।
খবরে আরো জানা যায়, আমেরিকা  প্রবাসী মোছাঃ হাবিবা খাতুন মুন্নি গত ২০১৪ সালের ডিসেম্বরে তার শিশুকে দেখভাল তথা লালন পালন করতে তার গর্ভধারিনী মা আয়শা হাবিব বিলকিসকে আমেরিকা নিয়ে যায় । সেখানে মাকে নিয়ে গিয়ে প্রথমে তুচ্ছ- তাচ্ছিল্ল করে । সামান্য ত্রুটি বিচ্যুতির অজুহাত দেখিয়ে একপর্যায়ে মায়ের খাওয়া দাওয়ার পরিমান কমাতে থাকে।

মোছাঃ হাবিবা খাতুন বিলকিস আরো জানান, ২দিনের স্থলে একদিন খাবার দেয় । ক্রমশ;মানসিক ও শারীরিক ভাবে মাকে নির্যাতন শুরু করে মোছাঃ হাবিবা খাতুন মুন্নি ।

এরপর হুমকি ধমকি দিতে থাকে । মাকে মারধর, মায়ের শরীরে গরম পানি ঢেলে দেয়া, হাত ভেঙে দেয়া, ওড়না মুখে বুজে দেয়াসহ অকথ্য নির্যাতন করতে থাকে মাকে।

তার অভিযোগ, সর্বশেষ মায়ের ৪টি দাত ভেঙে দেয় । মেয়ে কর্তৃক নির্যাতন অত্যাচার সইতে না পেয়ে আমেরিকা পুলিশের শ্মরণাপন্ন হন মা আয়শা হাবিব বিলকিস । মোবাইলে আমেরিকা পুলিশকে ৯১১ এ বিষয়টি জানান । পুলিশ এসে ঘটনার সত্যতা পেয়ে তাকে নগদ ৩ লাখ টাকা জরিমানা ধার্য করে আদায় করে দেয়।

প্রতিবেশিদের ভাস্যমতে, মোছাঃ হাবিবা খাতুন মুন্নি ২০১৫ সালের জানুয়ারি মাসে দেশে ফিরলে মাকেও নিয়ে আসে । আবার আমেরিকা গিয়ে ২০১৭ সালে দেশে ফিরে । দেশে এসে ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলার রসুলপুর গ্রামে পৈত্রিক বাড়ি সেখানেও মাকে নির্যাতন হামলা চালায় হাবিবা খাতুন মুন্নী । সে তার মাকে জিম্মী করে ছোট ভাই আকিব এর ৫ কাঠা জমি লিখে নেয়।