মুসলমান ছেলের সাথে কেরালার মুখ্যমন্ত্রীর হিন্দু মেয়ের বি’য়ে

মুসলমান ছেলের সাথে কেরালার মুখ্যমন্ত্রীর হিন্দু মেয়ের বি’য়ে,মিডিয়ায় ব্যাপক সারা। ভারতীয় রাজ্য কেরালার মুখ্যমন্ত্রী পিনারাইবিজায়নের মেয়ে বীণা টির সাথে বি’য়ে হয়েছে সিপিআই(এম) নেতা পি এ মোহাম্মদ রিয়াজের। যেহেতু বীণা হি’ন্দু আর রিয়াজ মুসলিম, তাই এ বি’য়ে নিয়ে দক্ষিণ ভারতের সামাজিক মাধ্যমে বেশ আলোচনা

হচ্ছে।করোনা সংক্রান্ত বিধিনিষেধের কারণে এখনো বি’য়ের অনুষ্ঠান জাঁকজমক করে করা যাচ্ছে না৷ ফলে ঘরোয়া অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়েই সারতে হচ্ছে কেরলের মু্খ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়নের মেয়ের বীণার এই বি’য়ে৷ কিন্তু রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর মেয়ের বি’য়ে বলে কথা! তাই দক্ষিণ ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে

বিয়ের ছিমছাম অনুষ্ঠান নিয়েও জোর চর্চা শুরু হয়েছে৷পেশায় তথ্যপ্রযুক্তি বিশেষজ্ঞ বীণার সঙ্গে সিপিআইএম-এরই যুবনেতা মোহাম্মদ রিয়াজের বিয়ে ইতিমধ্যেই সম্পন্ন হয়েছে৷ আগামী ১৫ জুন অতিথি আপ্যায়ণের ব্যবস্থা করা হয়েছে৷ এই বিয়ে নিয়ে নানা রকম আলোচনাই এখন কেরলের সোশ্যাল মিডিয়াতে হট টপিক।জানা গেছে

বীণা ও রিয়াজের রেজিস্ট্রি বিয়ে ইতিমধ্যেই হয়ে গিয়েছে৷ তিরুঅনন্তপুরমে সেই উপলক্ষে একটি ছিমছাম অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে৷ করোনা সংক্রান্ত যাবতীয় বি’ধিনিষেধ মেনেই দুই পরিবারের সদস্য এবং কয়েকজন বাছাই করা অতিথিকে এই অনু্ষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে৷তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থা

ওরাকেল-এ কাজ করার পর আর পি টেকসফট নামে একটি সংস্থার সিইও ছিলেন বীণা৷ ছ’ বছর আগে নিজের একটি সংস্থা খোলেন তিনি৷ যার সদর দফতর ছিল বেঙ্গালুরুতে৷ মূলত মোবিলিটি এবং ক্লাউড সলিউশন পরিষেবা দেয়ার কাজ করত এই সংস্থা৷তবে বীণার এই সংস্থা বিতর্কেও

জড়িয়েছে৷ কংগ্রেস নেতা পি টি টমাস কিছু দিন আগে অভিযোগ করেছিলেন, বীণার সংস্থার ওয়েবসাইট আচমকা বন্ধ হয়ে যাওয়ার পিছনে আমেরিকার Sprinklr সংস্থার সঙ্গে কেরল সরকারের একটি চুক্তি রয়েছে৷ অভিযোগ উঠেছিল, কেরল সরকার করোনা রোগীদের সংক্রান্ত তথ্য রাখার জন্য Sprinklr-এর সঙ্গে একটি চুক্তি

করেছিল৷তবে বীণার এটি দ্বিতীয় বিয়ে বলেই জানা গিয়েছে৷ এর আগে তিরুঅনন্তপুরমের বাসিন্দা পেশায় আইনজীবী সুনীশ নামে এক ব্যক্তির সঙ্গে তার বিয়ে হয়েছিল৷ তাদের দশ বছরের একটি সন্তানও রয়েছে৷ কিন্তু সুনীশের সঙ্গে বীণার

বিবাহবিচ্ছেদ হয়ে গেছে৷ এর পরই রিয়াজের সঙ্গে বীণার সম্পর্ক গড়ে ওঠে৷ছাত্র রাজনীতি করে উঠে আসা রিয়াজ ২০১৭ সালে সিপিএম-এর যুব সংগঠন ডিওয়াইএফআই-এর সভাপতি নির্বাচিত হন৷ ২০০৯ সালে লোকসভা নির্বাচনে কোঝিকোড় কেন্দ্র থেকে সিপিএম-এর প্রার্থী হিসেবে লড়ে সামান্য ব্যবধানে পরাজিত হয়েছিলেন রিয়াজ৷ তবে

রিয়াজেরও এটি দ্বিতীয় বিয়ে৷ প্রথমপক্ষের স্ত্রীর সঙ্গে তার দু’টি সন্তান রয়েছে৷যেহেতু রিয়াজ মুসলিম এবং বীণা হিন্দু, স্বভাবতই কেরলে সোশ্যাল মিডিয়ায় এই বিষয়টি নিয়ে যথেষ্ট আলোচনা শুরু হয়েছে৷ অনেকে

যেমন নবদম্পতিকে ট্রোল করছেন, সেরকমই প্রচুর সংখ্যক মানুষ বীণা ও রিয়াজকে নতুন জীবনের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন৷

সূত্র:নিউজ ১৮ ও ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।