মুক্তাগাছা থানা পুলিশ এবার আড়াই মাসের রিয়া মনিকে তার মায়ের কোলে ফিরিয়ে দিল

মোঃ আনিসুর রহমান, নিজস্ব প্রতিবেদকঃমুক্তাগাছা থানা পুলিশ এবার আড়াই মাসের রিয়া মনিকে উদ্ধার করে তার মায়ের কোলে ফিরিয়ে দিল। মুক্তাগাছা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি বিপ্লব কুমার বিশ্বাস এই থানায় যোগদানের পর থেকে তার নির্দেশে একের পর এক মানবতা মুলক কাজ করে যাচ্ছেন থানা পুলিশ। তিনি মুক্তাগাছা থানায় যোগদান করার পর এক প্রতিবন্ধীকে তার পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দেন,এক বৃদ্ধকে তার পরিবারের সদস্যদের কাছে ফিরিয়ে দেন,সাত বছরের এক ছেলেকে তার পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দেন,সাত মাসের এক বাচ্চাকে তার মায়ের কোলে ফিরিয়ে দেন।এর সাথে আবার যোগ হলো আড়াই মাসের রিয়া মনিকে তার মায়ের কোলে ফিরিয়ে দেওয়া।

থানা সূত্রে জানাগেছে, মায়ের সম্মতি ছাড়াই এই দুধের শিশুটিকে তার পিতা লিটন মিয়া সামান্য কিছু টাকার বিনিময়ে দত্তক দিয়ে দেয় এবং শিশুটির মা যখন বুঝতে পারেন যে তার বুকের ধন রিয়া মনিকে দত্তক দিয়ে দিয়েছেন তার স্বামী। তখন উপায়ন্তর না দেখে চলে আসেন মুক্তাগাছা থানায়। থানায় এসে তার শিশু কন্যাকে ফিরে পেতে গত ৫ আগষ্ট ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। লিখিত অভিযোগের প্রেক্ষিতে রিয়া মনিকে উদ্ধারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য এসআই মাহমুদুল হাসানকে নির্দেশ প্রদান করেন ওসি বিপ্লব কুমার বিশ্বাস । এসআই মাহমুদুল হাসান তার সঙ্গীয় ফোর্সদের নিয়ে অক্লান্ত পরিশ্রম করে অবশেষে গত ৬ আগষ্ট রাতে টাংগাইল জেলার ভুয়াপুর উপজেলার একটি প্রত্যন্ত গ্রাম থেকে আড়াই মাসের শিশু সন্তান রিয়া মনি কে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসেন এবং রিয়া মনিকে তার মায়ের কোলে ফিরিয়ে দেওয়া হয়।

মুক্তাগাছা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি বিপ্লব কুমার বিশ্বাস বলেন, অভিযোগ পাওয়ার পর তাৎক্ষণিকভাবে বিষয়টি আমাদের শ্রদ্ধেয় পুলিশ সুপার মহোদয় এবং সার্কেল স্যার কে অবহিত করি। আমরা বিষয়টিকে সর্বোচ্চ প্রাধান্য দিয়ে মাঠে নামি ,সন্ধান করতে থাকি শিশুটির, এদিকে সন্তানের শোকে শিশুটির মায়ের কি অবস্থা সেটা সহজেই অনুমান করা যায়, অবশেষে গত কাল রাতে টাংগাইল জেলার ভুয়াপুর উপজেলার একটি প্রত্যন্ত গ্রাম থেকে আড়াই মাসের শিশু সন্তান রিয়া মনি কে উদ্ধার করে ফিরিয়ে দেয়া হয় মায়ের কোলে।

তার বিনিময়ে আমরা পেয়েছি সেই সন্তান হারানো মায়ের মিষ্টি মুখের একটি হাসি যেটা আমাদের কাছে অমূল্য।