ভ্যাকসিন ছাড়াই নির্মূল হচ্ছে করোনা

ত্রিশাল প্রতিদিন ডেস্কঃঃ করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন এখনো আবিষ্কার হয়নি। তবে তিনটি প্রতিষেধক বাজারে আসার অপেক্ষায় রয়েছে, চলছে চূড়ান্ত পর্বের পরীক্ষা। এর মধ্যে টানা তৃতীয় ট্রায়ালেও সফল হয়েছে অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের ভ্যাকসিন।কিন্তু কাতারে কোন ভ্যাকসিন ছাড়াই শুধু কিছু নিয়ম মেনেই চলছে চিকিৎসা আর সুস্থ্য হচ্ছে আক্রান্তরা।কিছু দিন আগে যেখানে আক্রান্ত ছিল ৮০ হাজার ২ মাসের ব্যবধানে তা এখন নেমে এসেছে ১৫১০৬ জনে।যারা আক্রান্ত থেকে সুস্থ্য হয়েছেন তারা বলছে কোন প্রকার ঔষধ ছাড়া শুধু নিয়ম মেনে আলাদা থেকে নিয়মিত ভাল খাবার আর তিন বেলা গরম পানি দিয়ে গরগর করতে হয়েছে। আর কারো জ্বর থাকলে এন্টিবাইটিক,প্যারাসিটামল আর ভিটামিন সি প্রথম দিকে দিতে শুনেছিলাম এখন আর নেই। এভাবেই চলছে চিকিৎসা মৃত্যুর হার সবার থেকে কম।

ইতালির সান মার্টিনো জেনারেল হাসপাতালের সংক্রামক রোগের প্রধান গবেষক হিসেবে কাজ করছেন অধ্যাপক মাত্তিও বাসেত্তি। তিনি দাবি করেন, শক্তি হারিয়ে ক্রমশ দুর্বল হচ্ছে করোনাভাইরাস। শুধু তাই নয়, কোনোরকম প্রতিষেধক ছাড়াই এই ভাইরাস সম্পূর্ণ নির্মূল হয়ে যাবে। খবর নিউইয়র্ক পোস্ট তিনি আরো জানান, শুরুর দিকে করোনা সংক্রমণের তাণ্ডব যতটা লক্ষ করা গেছে, এখন সে তুলনায় ভাইরাসের তেজ অনেকটাই কমে এসেছে। আক্রান্তরা এখন আগের তুলনায় অনেকটাই দ্রুত সেরে উঠছেন অধিকাংশ ক্ষেত্রেই।তার মতে, এই ভাইরাসের সাম্প্রতিক জিনগত পরিবর্তনই হয়তো কারণ। জিনগত পরিবর্তনের ফলে এই ভাইরাসের প্রাণঘাতী ক্ষমতা এখন হ্রাস পেয়েছে।

এদিকে দেশটির আরেক বিজ্ঞানী আলবার্তো জাংরিলো বলেন, মে মাসের শুরুতেও ইতালিতে করোনার ভয়াবহ অবস্থা ছিল। কিন্তু শেষ দিকে পরিস্থিতি বেশ নিয়ন্ত্রণে সেখানে।মাত্তিও বাসেত্তি যে দাবি করেছেন, তার সঙ্গে একমত পোষণ করেননি অনেক দেশের গবেষকরাই। কারণ তিনি, তেমন কোনো যুক্তি পেশ করতে পারেননি। অন্যান্য বিজ্ঞানীদের দাবি, উন্নত চিকিৎসার কারণেই মানুষ আগের চেয়ে বেশি সুস্থ হয়ে উঠছেন।তবে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনার রেকর্ড সংক্রমণ দেখলো বিশ্ব। আক্রান্ত হয়েছেন এক লাখ ৯৩ হাজার মানুষ। মহামারির ছয় মাসে যা এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ। এনিয়ে মোট আক্রান্ত কোটি ছাড়ালো। তবে স্বস্তির খবর হচ্ছে, ভ্যাকসিন আসার আগেই ৫৪ লাখেরও বেশি মানুষ সুস্থ হয়ে উঠেছেন।