ভালুকায় পোল্ট্রি ব্যবসায়ির বিরুদ্ধে গার্মেন্টস শ্রমিককে ধর্ষনের অভিযোগ

ভালুকায় পোল্ট্রি ব্যবসায়ির বিরুদ্ধে গার্মেন্টস শ্রমিককে ধর্ষনের অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিনিধি,ত্রিশাল প্রতিদিন:: ময়মনসিংহের ভালুকায় এক গার্মেন্টস শ্রমিককে বিদেশে পাঠানোর কথা বলে ধর্ষনের অভিযোগ উঠেছে পোল্ট্রি ব্যবসায়ি মাসুদের বিরুদ্ধে। এই ঘটনায় ০৬ মার্চ শুক্রবার গার্মেন্টস শ্রমিক মোছা:চুমকি আক্তার নুপুর ধর্ষনের দায়ে তিন জনের নাম উল্লেখ করে থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

গত ০৪ মার্চ বুধবার উপজেলার বিরুনীয়া ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের নীলের টেক এলাকার বাসিন্দা রুহুল আমিন মেম্বারের ছেলে মাসুদ (৩০) এর বিরুদ্ধে। অভিযুক্তরা হলেন:গোয়ারি বিরুনীয়ার মোড় নীলের টেকের রুহুল মেম্বারের ছেলে মাসুদ রানা(৩০), মৃত আওয়ালের ছেলে কামাল হোসেন(৪৫) ও কামাল হোসেনের স্ত্রী মোছা:আছিয়া খাতুন( ৩৬)।

থানায় লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, কামাল হোসেন নামে একজন আদম ব্যবসায়ি গত ৯ মাস পূর্বে গার্মেন্টস শ্রমিক চুমকি আক্তার নুপুর ও তার আপন ভাই বাবুল পালোয়ানকে সৌদি পাঠানোর কথা বলে ০২ লাখ টাকা নেয়! গত বুধবার ০৪ মার্চ সকালে ভিকটিমকে মেডিকেল টেস্টের কথা বলে আদম ব্যবসায়ি কামালের বন্ধু মাসুদকে দিয়ে ঢাকায় নিয়ে মেডিকেল টেস্ট করার পর রাতে বাড়ি ফেরার সময় আনুমানিক রাত ৮ টার দিকে মাসুদ তার বাড়ির পাশে নিজ ব্যবসা পোল্ট্রির ঘরে নিয়ে মেয়েটিকে খুনের হুমকি দিয়ে জোড়পূর্বক দুই বার ধর্ষন করে। ধর্ষনের পর গার্মেন্টস শ্রমিক নুপুর আক্তারকে ভিকটিমের সহযোগী কামাল ও তার স্ত্রী ভালুকা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে চিকিৎসা শেষে রাতেই মেয়েটিকে বাড়িতে রেখে যায় এবং তাকে হুমকি দেয় যাতে ঘটনাটি কারো সাথে না বলে!

এ ঘটনা পরদিন সকালে মেয়েটি তার পরিবারের কাছে বললে তার পরিবারের লোকজন মাসুদের বাবা রুহুল মেম্বারের সাথে বিষয়টি শেয়ার করে কিন্তু কোন শুরাহা না পেয়ে সকাল ১১ টার দিকে গার্মেন্টস শ্রমিক নুপুর ভিকটিম মাসুদের বাড়ি উঠে বিয়ের অনশন করে। পরে বিষয়টি ভালুকার সাংবাদিকরা জানতে পেরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে বিস্তারিত তত্ত্ব নিয়ে আসে। বিকালে মেয়েটি থানায় এসে ধর্ষনের লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন তিন জনের বিরুদ্ধে।

ভালুকা মডেল থানার ওসি মাঈন উদ্দিন বলেন, আমরা প্রাথমিক ভাবে অভিযোগ পেয়েছি, ঘটনার তদন্ত চলছে ।