ভালুকায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রোমেন শর্মার এ্যাকশান শুরু

ভালুকায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রোমেন শর্মার এ্যাকশান শুরু

নিজস্ব প্রতিনিধি, ত্রিশাল প্রতিদিন:: ময়মনসিংহের ভালুকায় নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে দোকান-পাট খোলা, চায়ের দোকানে আড্ডা বন্ধে মাঠে নেমেছে উপজেলা সহকারী কমিশণার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রোমেন শর্মার নেতৃত্বে প্রশাসন।

আজ ২৫ মার্চ রাত ৯টার দিকে এসিল্যান্ডের নেতৃত্বে মডেল থানা পুলিশ অন্যান্য কর্মকতাবৃদ্ধকে সাথে নিয়ে উপজেলা সদরের বিভিন্ন সড়কের মোড়ে মোড়ে এ অভিযান পরিচালনা করে ভ্রাম্যমান আদালতের টিম। অভিযান চলাকালে বিভিন্ন দোকান-পাট বন্ধে জরুরী নির্দেশনা দেয়া হয়। বিভিন্ন স্থানে পুলিশী এ্যাকশান নিতেও দেখা যায়। এ সময় তরিঘড়ি করে দোকান-পাট বন্ধ করে দেয় ব্যাবসায়ীরা।

উল্লেখ্য,গত ২৪ মার্চ থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত করোনা প্রতিরোধে সচেতনতার অংশ হিসেবে সকল আড্ডা ও চায়ের স্টলসহ সন্ধার পর দোকান-পাট বন্ধ ঘোষনা করে স্থানীয় উপজেলা প্রশাসন। নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ব্যাবসায়ীরা দোকান খোলা রাখা ও লোকজনের আড্ডাবাজি চালু রাখায় এ অভিযান পরিচালনা করা হয়। পৌর এলাকা লক-ডাউন করতে প্রশাসনিক এ্যাকশানের পর থেকে সব ধরনের ব্যাবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ হয়ে যায়। আজ রাত সাড়ে নয়টার পর থেকে শহরের বাসট্যান্ড, বাজার রোড, গফরগাঁও রোডে অভিযানের পর জনশূন্য হয়ে ভূতুরে পরিবেশ মনে হয়।

ভালুকা উপজেলা সহকারী কমিশণার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রোমেন শর্মা ত্রিশাল প্রতিদিনকে বলেন, গত ২৪ মার্চ উপজেলা প্রশাসন ভালুকায় সন্ধার পর সকল দোকান-পাট বন্ধ, চায়ের স্টলে আড্ডা বন্ধে নির্দেশ দেয় কিন্তু ব্যবসায়িরা নির্দেশ অমান্য করে দোকানপাট খোলা রেখে চায়ের স্টলে জনসাধারণের আড্ডা দিতে সুযোগ করে দিচ্ছিলো! তাই জনস্বার্থে উপজেলা প্রশাসন বাধ্য হয়ে অধ্যরাত নয়টার দিকে পৌর সদরের মোড়ে মোড়ে টহল শুরু করে।

এসময় ব্যবসায়িরা পুলিশি এ্যাকশান দেখে দ্রুত দোকান পাট বন্ধ করে দেয় এবং সকলের কাছে অনুরোধ করা হয় নিজের ও নিজের পরিবারের সুরক্ষার কথা ভেবে হলেও আপনারা ঘরে থাকুন। আর যদি সরকারি নির্দেশ অমান্য করে বাহিরে বের হন তাহলে প্রশাসন বাধ্য হবে আপনাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে।