ভালুকায় যাত্রীছাউনি না থাকায় জনদুর্ভোগে অতিষ্ঠ যাত্রীরা

মো: নাজমুল ইসলাম, নিজস্ব প্রতিনিধি:: ময়মনসিংহের প্রবেশদ্বার শিল্পনগরী ভালুকা উপজেলার কয়েক লাখ মানুষের ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় লোকাল বাসে সীমাহীন দুর্ভোগের শিকার হয়ে যাতায়াত করতে হয় প্রতিনিয়তই।

অথচ শিল্প নগরীতে কয়েক লাখ মানুষের দুর্ভোগের কথা চিন্তা করলে একটি কাউন্টার বাস সার্ভিস অতি জরুরি। বিগত বছরগুলোতে যা ছিল হঠাৎ করেই গত দুই বছর ধরে তা বন্ধ করে রেখেছে। কিন্তু কেন সাধারণ মানুষের দুর্ভোগের কথা না ভেবেই এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভালুকার পরিবহন শ্রমিক সংগঠন তা বোধগম্য নহে।

সাধারন জনগনের প্রশ্ন শিল্পনগরী ভালুকার কাউন্টার বাস সার্ভিস কেন বন্ধ হলো ? দায় কার ? জেলা পরিবহন বাস মালিক সমিতির না ভালুকার পরিবহন ইউনিটের! কেন কয়েকলাখ জনগনকে জিম্মি করে শিল্পনগরী ভালুকায় বাস কাউন্টার, সিটিং সার্ভিস বন্ধ। নেই কোন যাত্রিছাউনি যাতে যাত্রিরা বাসের জন্য অপেক্ষা করে দাড়াবে।

প্রতিদিন ঢাকায় অফিস করেন এমন কয়েকজনের সাথে কথা বলে জানা যায়, বিগত বছরগুলোতে ডাউন টাউন কাউন্টার বাস ছিলো এতে সকাল সাড়ে পাঁচটা থেকে সাড়ে ছয়টা পর্যন্ত প্রতি ১০ মিনিট পর পর অফিস টাইম গাড়ি ছাড়তো, আমরা চাকরিজীবীরা খুব আরামে ঢাকায় প্রতিদিন এসে অফিস করতাম। কিন্তু দুই বছর ধরে কোন কাউন্টার বাস চলাচল করেনা।এতে অফিস করা আমাদের প্রবলেম হয় কারন ময়মনসিংহ থেকে ছেড়ে আসা এনা, সৌখিন পরিবহনের ভালুকায় কাউন্টার নেই ফলে যাত্রি উঠায় না। সে কারনে খুব প্রবলেম অফিস করা তাই এখন ঢাকায় বাসা ভাড়া করে থাকতে হয়।

স্থানীয় সাংসদ কাজিম উদ্দিন আহমেদ ধনু কাছে সাধারণ মানুষের দাবী অতি দ্রুত একটি কাউন্টার বাস সার্ভিস ভালুকা- ঢাকা রুটে চালু করার জন্য। যাতে ভালুকার যাত্রীদের দুর্ভোগের পরিমাণ কমবে।

যারা ঢাকায় এসে অফিস করে,শত শত শিল্পকারখানাগুলোতে এডমিন পোষ্টে বা অফিসিয়াল পোষ্টে চাকুরি করে তাদের অফিসের কাজে রাজধানী ঢাকাসহ বিভিন্ন জেলায় বেশি যাতায়াত করতে হয়! তাদের জন্য সুবিধা হবে কাউন্টার বাস সার্ভিস চালু হলে, জনদুর্ভোগ অনেকাংশে কমবে ইনশাআল্লাহ।

ভালুকা- ঢাকা কাউন্টার সার্ভিস বা বিআরটিসি বাস চালুর দাবী সাধারণ মানুষের দুর্ভোগের কথা চিন্তা করলে অতি দূত বাস্তবায়ন জরুরি বলে মনে করেন ভালুকার সচেতন মহল।