ভালুকায় কর্মহীন অসহায় পাঁচশত পরিবারকে খাদ্য সামগ্রী পৌছে দিলো উপজেলা ছাত্রদল

ভালুকায় কর্মহীন অসহায় পাঁচশত পরিবারকে খাদ্য সামগ্রী পৌছে দিলো উপজেলা ছাত্রদল

নিজস্ব প্রতিনিধি, ত্রিশাল প্রতিদিন:: ময়মনসিংহের ভালুকায় করোনার প্রভাবে খেটেখাওয়া কর্মহীন অসহায় পাঁচশত পরিবারের মাঝে নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রী উপজেলা বিভিন্ন ইউনিয়নের পাড়ামহল্লায় বাড়ি বাড়ি গিয়ে পৌছে দিলো ভালুকা উপজেলা ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা।

ছাত্রদলের সাংগঠনিক অভিভাবক বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নির্দেশে, ভালুকা উপজেলা বিএনপি সাবেক শিল্পবিষয়ক সম্পাদক, জেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটির সদস্য আলহাজ্ব মোর্শেদ আলমের পরামর্শে, ময়মনসিংহ দক্ষিণ জেলা ছাত্রদলের দিকনির্দেশনায়, ভালুকা উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতি প্রার্থী শামীম আহমেদের নেতৃত্বে বিভিন্ন ইউনিয়নে গরীব অসহায় মানুষের বাড়ি বাড়ি গিয়ে নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রী পৌছে দিয়েছে ভালুকা উপ‌জেলা ছাত্রদল।

 

ভালুকায় কর্মহীন অসহায় পাঁচশত পরিবারকে খাদ্য সামগ্রী পৌছে দিলো উপজেলা ছাত্রদল

আজ ৪ এপ্রিল রোজ শনিবার সকাল দশটায় ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা ভালুকা নতুন বাসট্যান্ড বিএনপির দলীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে ত্রান সামগ্রী নিয়ে উপজেলার উথুরা ইউনিয়ন হয়ে মেদুয়ারী, ভরাডোবা, ধীতপুর, বিরুনীয়া ও ভালুকা ইউনিয়নের পাড়ামহল্লায় অসহায় মানুষের বাড়ি বাড়ি গিয়ে ৫০০শত পরিবারকে খাদ্য সামগ্রী পৌছে দিয়েছে এবং মানুষকে প্রাণঘাতী করোনা প্রতিরোধে সচেতনমূলক পরামর্শ দেন। এসময় উপজেলা ছাত্রদল নেতা মাসুদ রানা, হিমেল, শরীফ মিয়া, সজিব মন্ডল, রাসেল ঢালী, জুয়েল ঢালী, শরীফ আহমেদ, রায়হান মৃধা, নুরহোসেন, ডন, হুমায়ন, সজিব মাহমুদ, শাহজাহান, সাকিব, ফেরদৌস, সুমন,রনিসহ অনেকেই উপস্থিত ছিলেন।

ভালুকা উপজেলা ছাত্রদল নেতা শামীম আহমেদ ত্রিশাল প্রতিদিনকে বলেন, দেশের দুর্যোগময় মুহুর্তে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নির্দেশে,জেলা ছাত্রদলের দিকনির্দেশনায় ভালুকা বিএপির কর্নধার আলহাজ্ব মোর্শেদ আলমের পরামর্শক্রমে করোনার প্রভাবে লক-ডাউনে গৃহবন্দী খেটেখাওয়া কর্মহীন উপজেলার ৬ টি ইউনিয়নে বাড়ি বাড়ি গিয়ে ৫০০শত পরিবারের মাঝে ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা নিজস্ব অর্থায়নে খাদ্য সামগ্রী পৌছে দিয়েছে। পর্যায়ক্রমে ধারাবাহিক ভাবে ভালুকা উপজেলা ছাত্রদল অসহায় মানুষের মাঝে এ মানবিক সাহায্য অব্যাহত থাকবে করোনার দিনগুলোতে বলে জানান।