ভারত-চিন সীমান্তে উত্তেজনা

লাদাখে ভারত চিন সীমান্তে উত্তেজনা অব্যাহত। প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা ঘিরে চিনা আগ্রাসনের অভিযোগ নয়া দিল্লির। সরকারি পরিসংখ্যান অনুযায়ী, চলতি বছরের প্রথম চার মাসেই ১৭০ বার ভারতীয় ভূখণ্ডে অবৈধভাবে প্রবেশ করেছে চিনা সেনা। এর মধ্যে ১৩০ বার লাদাখে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখার এপারে চলে এসেছে প্রতিবেশী রাষ্ট্রের লাল ফৌজ। গত বছর এই সময়কালে ১১০ বার এই ঘটনা ঘটে। ফলে লাদাখে মাঝে মধ্যেই দুই দেশের সেনাবাহিনীর মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ছে।

এই পরিস্থিতিতে লাদাখে সেনাবাহিনীর মুখ্য কার্যালয়ে গেলেন সেনাপ্রধান এম এম নারাভানে। চিনের সঙ্গে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা নিয়ে চারটি বিভিন্ন স্থানে সামনাসামনি যুদ্ধের মতো পরিস্থিতি তৈরি হয় ভারতীয় সেনার। এরপরেই সেনা প্রধান লাদাখ সফরে এলেন। এমনিতেই গত কয়েক দিন ধরে লাদাখ ও সিকিম সীমান্তে নিয়ন্ত্রণরেখা সংলগ্ন এলাকায় ভারত ও চিন অতিরিক্ত সেনা নিয়োগের জেরে পরিস্থিতি ক্রমশ উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে। এই পরিস্থিতিতে সেনা বাহিনীকে বিশেষ কোনও বার্তা দিতেই কি লাদাখে গেলেন সেনাপ্রধান? তা নিয়েই শুরু হয়েছে জল্পনা। লাদাখ থেকে অরুণাচল প্রদেশ। প্রায় ৩,৪৮৮ কিলোমিটার জুড়ে ভারত-চিন সীমান্ত অবস্থিত। সরকারি তথ্য থেকে জানা যাচ্ছে যে, ২০১৫ সাল থেকে লাল ফৌজ বহুবার ভারতীয় সীমানায় প্রবেশ করেছে।