ব্লিচিং পাউডার দিয়ে পরিষ্কার করা হচ্ছে ময়মনসিংহ শহরের রাস্তাগুলো

ব্লিচিং পাউডার দিয়ে পরিষ্কার করা হচ্ছে ময়মনসিংহ শহরের রাস্তাগুলো

নিজস্ব প্রতিনিধি, ত্রিশাল প্রতিদিন:: ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশন কোভিড-১৯ মোকাবেলায় গত ২০ মার্চ হতে দিন-রাত ধরে অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ইকরামুল হক টিটু। যার সুযোগ্য পরিকল্পনায় ময়মনসিংহ সিটিতে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে ব্যাপক প্রস্তুতি সম্পূর্ণ করেছে সিটি কর্পোরেশন।

২৫ মার্চ রাত ৯.৩০ মিনিটে শহরের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ন ব্যস্ত মোড় গাঙ্গিনারপাড়ে এভাবেই রাস্তায় নিজে দাড়িয়ে থেকে করোনা প্রতিরোধক ব্লিচিং পাউডার দিয়ে রাস্তাগুলো জীবনুমুক্ত করতে স্প্রে করা হচ্ছে। গত তিন দিন ধরে শহরের প্রতিটি রাস্তায় রাতের বেলায় সিটি কর্পোরেশন কর্তৃক এভাবেই জীবনুমুক্ত করতে ১০ হাজার লিটার পানির ট্র্যাংক লড়ি দিয়ে প্রতিনিয়ত পরিষ্কার করা হচ্ছে।

এছাড়া করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে মেয়র টিটু শহরের বাসিন্দারা যাতে নিত্যপ্রয়োজনীয় পন্যসামগ্রীর জন্য ঘরের বাহিরে বের হতে না হয় সেজন্য পন্যসামগ্রীর হোম ডেলিভারি সার্ভিসের ব্যবস্থা করে ব্যাপক প্রসংশিত হয়েছেন। এতে সাধারন মানুষকে নিত্যপ্রয়োজনীয় পন্যসামগ্রী ন্যায্য মূল্যে হোম ডেলিভারি করা হচ্ছে।

সিটি মেয়র ইকরামুল হক টিটু জনগনকে এই দূর্যোগময় পরিস্থিতি মোকাবেলা করতে সরকারি সকল নির্দেশনা মেনে চলতে এবং করোনা ভাইরাস থেকে মানুষকে বাঁচতে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা বাধ্যতা মূলক তার জন্য ব্যাপক প্রচারনা চালিয়েছেন।

শহরের সমস্ত দোকান-পাট বন্ধ বাহিরে আড্ডাসহ ব্যাটারি চালিত অটো-রিকশা এমনকি দুরপাল্লার বাস চলাচল বন্ধ করে দিয়েছেন। ময়মনসিংহ সিটিতে প্রতিটি ওয়ার্ডের কাউন্সিলরদের তিনি সর্বদাই করোনা মোকাবেলা করতে সাধারন মানুষের পাশে দাড়াতে নির্দেশ দিয়েছেন।

ময়মনসিংহ বিভাগের প্রতিটি পৌরসভার মেয়রের উচিৎ এমন করে পৌর এলাকার রাস্তাগুলো জীবনুনাশক স্প্রে করে করোনা ঝুঁকি কমাতে। এ মুহূর্তে বাংলাদেশের সকল সিটি কর্পোরেশনে এইরকম পদক্ষেপ নেয়া উচিত বলে মনে করছেন সুশিল সমাজ।