বৃষ্টি শেষে আবার শুরু হলো খেলা

ত্রিশাল প্রতিদিন ডেস্ক:: রাতেই মুখ গোমড়া করে ছিল ব্লুমফন্টেইনের আকাশ। যার প্রভাবে সকাল থেকেই বৃষ্টি হচ্ছিল। এর প্রভাব পড়ে বাংলাদেশ-দক্ষিণ আফ্রিকার মধ্যকার সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টের দ্বিতীয় দিনের খেলায়। বৃষ্টির কারণে প্রায় দেড় ঘন্টা পর দ্বিতীয় দিনের খেলা শুরু হয়েছে।

এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত দক্ষিণ আফ্রিকার স্কোর ৪৩৫/৪। হাশিম আমলা ৮৯ ও ফাফ দু প্লেসি ৬৯ রানে ব্যাট করছেন। দ্বিতীয় দিনের শুরুতেও বাংলাদেশের বোলারদের ওপর প্রভাব ধরে রেখেছে দক্ষিণ আফ্রিকার ব্যাটসম্যানরা।

অবশ্য ম্যাচের প্রথম দিনটি বাংলাদেশের জন্য ছিল খুবই হতাশার। টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে তিন উইকেট হারিয়ে ৪২৮ রান তুলে নেয় প্রোটিয়ারা। দুই ওপেনার ডিন এলগার ও এইডেন মার্করাম করেছেন দারুণ দুটি সেঞ্চুরির।

তাই প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশের সামনে আরো বড় সংগ্রহ দাঁড় করাচ্ছে দক্ষিণ আফ্রিকা, সেটা বলার অপেক্ষা রাখে না। এর আগে প্রথম টেস্টে বাংলাদেশ ৩৩৩ রানের বিশাল ব্যবধানে হেরেছিল। চলমান এই টেস্টে কেমন করবেন মুশফিকরা, সেটা সময়ই বলে দেবে।

ব্যাটিংয়ে নেমেই মুশফিকের সিদ্ধান্তকে ভুল প্রমাণ করেন ডিন এলগার ও এইডেন মার্করাম। প্রথম উইকেটের জন্য প্রায় সাড়ে তিন ঘণ্টা অপেক্ষা করতে হয় বাংলাদেশকে। দিনের প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে ডিন এলগারকে ফেরান শুভাশিষ রায়। ৫৪তম ওভারের চতুর্থ ওভারে এলগারকে মুস্তাফিজের তালুবন্দি করেন তিনি। প্রোটিয়াদের রান তখন ২৪৩। এলগার করেন ১১৩ রান।

এরপর আমলাকে নিয়ে এগুতে থাকেন মার্করাম। তবে জুটিটা বড় হতে দেননি রুবেল হোসেন। দুর্দান্ত এক ইয়র্কারে মার্করামের স্টাম্প উড়িয়ে দেন তিনি। প্রথম টেস্টে সেঞ্চুরি মিস করা মার্করাম ১৪৩ রান করে বিদায় নেন।

খানিক বাদে টেম্বা বাভুমাকেও ফেরান শুভাশিষ। উইকেটের পেছনে লিটন দাসকে ক্যাচ দেন এই প্রোটিয়া ব্যাটসম্যান। মাত্র ৭ রান করেন তিনি। দ্রুত তিন উইকেট তুলে নিয়ে কিছুটা স্বস্তিতে ছিল বাংলাদেশ। তবে চতুর্থ উইকেট জুটিতে ১৪০ রান তুলে নিয়ে সফরকারীদের আবার খাদের কিনারে ঠেলে দেন হাশিম আমলা ও ফাফ দু প্লেসি।