বাংলাদেশে প্রথম আন্তর্জাতিকমানের স্বাস্থ্যসেবা চালু উদ্বোধনে : ডা. দেবী শেঠী

দেবী শেঠী

চট্টগ্রামে ৯০০ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত ইম্পেরিয়াল হাসপাতালের উদ্বোধন করলেন ভারতের বিশ্ববিখ্যাত হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. দেবী প্রসাদ শেঠী।

উদ্বোধনকালে ডা. দেবী প্রসাদ শেঠী মন্তব্য করেন, ‘বাংলাদেশে এই প্রথম আন্তর্জাতিকমানের পরিকল্পিত স্বাস্থ্যসেবা চালু হয়েছে।’

আজ শনিবার সকালে নগরের পাহাড়তলী চক্ষু হাসপাতালের পাশে নব নির্মিত এই হাসপাতালের শুভ উদ্বোধন করেন তিনি।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ডা. দেবী শেঠী বলেন, ইমপেরিয়াল হসপিটাল বাংলাদেশে সঠিক ও উন্নত স্বাস্থ্যসেবার নতুন সংযোজন। ভালো চিকিৎসার জন্য ভারত, থাইল্যান্ড, সিঙ্গাপুর ও মালয়েশিয়াসহ বিভিন্ন দেশে যাওয়া বাংলাদেশি মানুষের সংখ্যা প্রতি বছর বাড়ছে। এই হাসপাতাল প্রতিষ্ঠার ফলে দেশের রোগীদের বিদেশে যাওয়ার প্রবণতা অনেকাংশে হ্রাস পাবে।

ড. দেবী শেঠীর বক্তব্যকে স্বাগত জানিয়ে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত সাবেক মন্ত্রী ও বর্তমান সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন এদেশের জনগণ ও রোগীদের পক্ষ থেকে তাকে ধন্যবাদ জানান।

তিনি বলেন, ইম্পেরিয়াল হাসপাতালের সঙ্গে যুক্ত হওয়ায় ব্যাঙ্গালুরুর নারায়ণা ইনস্টিটিউট অব কার্ডিয়াক সায়েন্সের প্রতিষ্ঠাতা ডা. দেবী শেঠীকে ধন্যবাদ।

জানা গেছে, সাত একর জমির ওপর ৫টি ভবন নিয়ে ৬ লাখ ৬০ হাজার বর্গফুট জায়গায় এ দৃষ্টিনন্দন হাসপাতাল নির্মিত হয়েছে। সব ধরনের চিকিৎসাসেবার ব্যবস্থা করা হয়েছে এ হাসপাতালে। এখানে ১০ শতাংশ অসচ্ছল রোগীকে নিয়মিত সেবা দেয়া হবে। হাসপাতালের বহির্বিভাগে ৬২ জন কনসালটেন্ট নিয়মিত সেবা দেবেন।

এই হাসপাতালের হৃদরোগ বিভাগটির নামকরণ করা হয়েছে ইম্পেরিয়াল-নারায়ণা কার্ডিয়াক বিভাগ।

যেখানে ভারতের নারায়ণা হেলথ ও ইম্পেরিয়াল হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের চিকিৎসকদের দিয়ে সেবা কার্যক্রম পরিচালিত হবে।

উদ্বোধন অনুষ্ঠানের সভাপতি এম এ মালেক বলেন, আমরা এই হাসপাতালে সর্বোচ্চ সেবা দিতে চাই। শুধু মুনাফা অর্জন নয়, চট্টগ্রামসহ দেশের স্বাস্থ্যখাতের অভাব ঘুচাতেই এই উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

উদ্বোধন অনুষ্ঠান শেষে হাসপাতাল পরিদর্শন করে এর অবকাঠামো, আধুনিক যন্ত্রপাতি দেখে সন্তোষ প্রকাশ করেন ডা. দেবী শেঠী।jugantor