বাংলাদেশি নারীরা ‘বেশি অলস’

ত্রিশাল প্রতিদিন ডেস্ক::পৃথিবীর সবচেয়ে ‘অলস’ বা শরীর চর্চায় বিমুখ দেশগুলোর তালিকা প্রকাশ করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও)। ২০০১ সাল থেকে ২০১৬ সাল পর্যন্ত বিশ্বের ১৬৮ দেশের ১৯ লাখ মানুষের ওপর জরিপ চালিয়ে ওই প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে সংস্থাটি। গবেষণায় বাংলাদেশি পুরুষদের তুলনায় নারীরা বেশি ‘অলস’ বা শরীর চর্চায় বিমুখ বলে দাবি করা হয়েছে। যারা এই শরীর চর্চায় বিমুখ তারা ডায়াবেটিস এবং কিছু ক্যান্সারসহ বেশকিছু রোগের ঝুঁকিতে রয়েছেন বলেও জানানো হয় ওই প্রতিবেদনে।

ডব্লিউএইচও’র ওই প্রতিবেদন সম্প্রতি প্রকাশ করা হয়েছে ল্যানসেট গ্লোবাল হেলথ জার্নালে। সেখানে বলা হয়েছে, যারা সপ্তাহে দুইবার অন্তত ৭৫ মিনিটের জন্য ভারী ব্যায়াম, ১৫০ মিনিটের মাঝারি মাত্রার ব্যায়াম বা দুটোর মিশ্রণে ব্যায়াম করেন তাদের শরীর চর্চায় সক্রিয় বলে ধরা হয়েছে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ওই জরিপে ২০০৩ সালে ৫ হাজার ৪০২ জন এবং ২০০৯ সালে ৯ হাজার ২৭৫ জন বাংলাদেশি অংশগ্রহণ করে। জরিপে অংশগ্রহণকারী এসব মানুষ ১৮ থেকে ৯৯ বছর বয়সী বাংলাদেশি নারী-পুরুষ বলে জানানো হয়েছে।

জরিপের ফলাফলের ভিত্তিতে করা ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বাংলাদেশি ২৭ দশমিক ৮ শতাংশ মানুষ ‘অলস’ কিংবা শরীর চর্চা করেন না। এরমধ্যে ১৬ দশমিক ১ শতাংশ পুরুষ এবং ৩৯ দশমিক ৫ শতাংশ নারী ‘অলস’ বা শরীর চর্চায় বিমুখ।

এই বিবেচনায় সবচেয়ে ‘অলস’ দেশের তালিকায় রয়েছে কুয়েত এবং সবচেয়ে সক্রিয় দেশের তালিকায় রয়েছে উগান্ডা। কুয়েতের শতকরা ৬৭ ভাগ মানুষ শরীর চর্চায় অনাগ্রহী এবং উগান্ডার ৫ দশমিক ৫ শতাংশ মানুষ।