ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়ায় এক ইউপি সদস্য’র অপকর্মের অভিযোগ

ফুলবাড়িয়া প্রতিনিধিঃ ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া উপজেলার এনায়েত পুর ইউনিয়ন পরিষদের ১নং ওয়ার্ডের সদস্য রইছদ্দিন ওরফে (দুদু) এক জীবিত ব্যক্তিকে মৃত সার্টিফিকেট ও একজন ভালো মানুষকে পঙ্গু বানিয়ে সরকারি সুবিধা দিয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

একই ওয়ার্ডের আলম নামের এক ব্যক্তি উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবরে অভিযোগ সূত্রে জানাযায়, এই দুদু মেম্বার ০১/০৯/২০১৮ তারিখ তার পিতা শওকত আলীর বয়স্ক ভাতা যার কার্ড বহি নং- ০২/১, হিসাব নং- ৩৩০২১০০৩০২৪৫৫ সাবেক ২৪৫৫। বই বাতিল করার জন্য মৃত্যু সার্টিফিকেট দিয়ে বই হাতিয়ে নিয়েছে অথচ শওকত আলী এখনো বেঁচে রয়েছেন যা সময়ের সবচেয়ে ন্যাকার জনক ঘটনা।

আরেক অভিযোগ সূত্রে জানাযায়, একই ওয়ার্ডের সাবেক মেম্বার আব্দুল হাই সুস্থ রয়েছেন।দুদু মেম্বার এলাকায় নির্বাচনী সুবিধা নিতে আব্দুল হাই মেম্বারকে পঙ্গু বানিয়ে দীর্ঘদিন যাবৎ সরকারি সুবিধা দিচ্ছেন।

পরে এ বিষয়ে মৃত সার্টিফিকেট দেওয়া শওকত আলীর সাথে কথা বললে তিনি কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন এবং এই ঘটনার জন্য প্রধান মন্ত্রীর কাছে দৃষ্টান্তমুলক শাস্তি চেয়ে বিচার কামনা করেছেন।

অভিযোগের ভিত্তিতে ১৪সেপ্টেম্বর দুপুরে সরেজমিন সরকারি সুবিধা ভোগী আব্দুল আব্দুল হাই মেম্বারের সাথে স্বাক্ষাত করে জানা যায়, সে পঙ্গু নয় সুস্থ রয়েছেন স্বাভাবিক ভাবে চলাফেড়া করছন।

ইউপি চেয়ারম্যান কবির হোসেনের সাথে মুঠো ফোনে কথা বললে তিনি জানান, আমরা কক্সবাজারে বেড়াতে এসেছি। এলাকায় এসে বিষয়টি নিয়ে সংবাদ সম্মেলন করবো সত্যতা যাচাই করে আইনের আশ্রয় নিব।

ইউপি সদস্য রইছদ্দিন দুদু মুঠোফোনে ঘটনা অস্বীকার করেছেন বিষয়টি যখন এলাকায় তোলপার শুরু হয় মুঠোফোনে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের সাথে কথা বললে তিনি জানান, ঐ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও মেম্বারের অনেক দূর্নীতি রয়েছে মর্মে আমার কাছে অভিযোগ রয়েছে।তারা মৃতকে জীবিত, স্বামী থাকতে বিধবা, আর সুস্থ ব্যক্তিকে পঙ্গু বানিয়ে সরকারি অর্থ লুট করে যাচ্ছেন।