ওয়াসিম হত্যার প্রতিবাদ ও ‘নিরাপদ সড়ক চাই’ দাবিতে শিক্ষার্থীদের মিছিল

চলন্ত বাস থেকে ফেলে ছাত্রহত্যার প্রতিবাদে সিলেটের রাস্তার বিভিন্ন মোড়ে অবস্থান নিয়েছেন শিক্ষার্থীরা।

আজ সকাল সাড়ে ১০টা থেকে সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়সহ অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজের শিক্ষার্থীরা নগরীর চৌহাট্টা এলাকাসহ বেশ কয়েকটি স্থানে অবস্থান নেন।

এর আগে সকালে নগরীতে ‘নিরাপদ সড়ক চাই’ দাবিতে সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মিছিল করতে দেখা গেছে। এ সময় তাদের সঙ্গে বিভিন্ন কলেজের শিক্ষার্থীদেরও যোগ দিতে দেখা যায়।

সকাল ১০টায় মিছিলটি নগরীর বিভিন্ন সড়ক হয়ে চৌহাট্টায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে এসে জড়ো হয়। সেখানে অবস্থান নিয়ে তারা এখন বিক্ষোভ করছেন। মানববন্ধন করছেন শিক্ষকরাও।

শিক্ষার্থীদের অবরোধে চৌহাট্টার চারদিকে শত শত গাড়ি আটকা পড়েছে। দীর্ঘ যানজটে আটকা পড়েছেন হাজারও পথচারী।

এ সময় শিক্ষার্থীরা ওয়াসিমের হত্যাকারী আটক বাসচালক ও হেলপারের ফাঁসি কার্যকর, ঘাতক ‘উদার’ পরিবহন বাসের রুট পারমিট বাতিল, লাইসেন্স বাতিলসহ নিরাপদ সড়কের দাবিতে তারা কোনো ফিটনেসবিহীন গাড়ি রাস্তায় চলতে পারবে না বলে হুশিয়ারি দেন।

শিক্ষার্থীদের এ আন্দোলনে একাত্মতা প্রকাশ করেছেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক এমপি শফিকুর রহমান চৌধুরী ও সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আশফাক আহমদ।

 

গতকাল (শনিবার) বিকাল ৪টা ৫৫ মিনিটে মৌলভীবাজারের শেরপুর এলাকায় ভাড়া নিয়ে বাগবিতণ্ডার জেরে সিলেটের কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের শেষ বর্ষের ছাত্র ওয়াসিম আব্বাসকে চলন্ত বাস থেকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয় বাস হেলপার। এর পর চালক বাসের স্পিড বাড়িয়ে দেয়।

বাসটি ওয়াসিমকে চাপা দিয়ে পালিয়ে যায়। সঙ্গে থাকা সহপাঠী ও স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে সিলেট এমএজি ওসমানী হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ওয়াসিমকে ‘ইচ্ছাকৃতভাবে ধাক্কা দিয়ে ফেলে বাসচাপায় হত্যা করা হয়েছে’ মর্মে অভিযোগে ঘটনার পর থেকেই বিক্ষোভ করছেন সিকৃবির শিক্ষার্থীরা।

নির্মম এ হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে সব ধরনের ক্লাস পরীক্ষা বর্জন করেন কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

ইতিমধ্যে উদার পরিবহনের বাস হেলপার (সহকারী) মাসুক আলীকে (৪০) আটক করা হয়েছে।

শনিবার রাত ১টার দিকে সুনামগঞ্জের ছাতকের সিংচাপইর গ্রামের শ্বশুরবাড়ি থেকে তাকে আটক করা হয় বলে নিশ্চিত করেছেন সুনামগঞ্জ পুলিশ সুপার মো. বরকতুল্লাহ।

এর আগে শনিবার রাত ১১টায় সিলেটের কদমতলী বাস টার্মিনাল থেকে বাসচালককেও পুলিশ আটক করেছে বলে  নিশ্চিত করেছেন সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের উপকমিশনার জেদান আল মুসা।