নজরুল তীর্থ ত্রিশালে উদযাপন হয়নি কবি নজরুল জন্ম জয়ন্তী

নজরুল তীর্থ ত্রিশালে উদযাপন হয়নি কবি নজরুল জন্ম জয়ন্তী

শামিম ইশতিয়াকঃ জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের বাল্যকালের একটা অংশ কেটেছিলো ত্রিশালে, কাজী রফিক উল্লাহ দারোগার হাত ধরে ত্রিশালে তার আগমন হয়েছিল, কাজির শিমলা কিংবা ত্রিশালের নামাপাড়ায় ছিলো তার আনাগোনা, বর্তমান জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের পাশের বটতলায় ছিলো তার অবসর সময় কাটানোর স্থান, বাশি বাজানো কিংবা চিন্তার প্রসারে শুকনির বিলপাড় এর পাশ ছিলো তার প্রিয় স্থান।

নজরুল বিখ্যাত হলো পাশাপাশি বিখ্যাত হলো তার স্মৃতিবিজরিত ত্রিশাল উপজেলা, নজরুল স্মরণে ত্রিশালের মানুষ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে শুরু করে বিভিন্ন প্রতিষ্টান,স্থানের নামকরণ করে তার নামে, নজরুল প্রেমীদের ভালোবাসায় সিক্ত ত্রিশাল হয়ে উঠে নজরুল তীর্থ হিসেবে, তাই প্রতি বছর ত্রিশালে ঘনঘটা করে পালন করা হয় কবির জন্মদিন, কবির অধ্যয়ন করা বিদ্যাপীঠ দরিরামপুর উচ্চ বিদ্যালয় (বর্তমানে নজরুল একাডেমি) মাঠে তিনদিন ব্যাপী পালন করা হয় নজরুল জন্ম জয়ন্তী, স্কুল মাঠের পাশেই নজরুল মঞ্চ কে কেন্দ্র করে জাতীয় পর্যায়ের জয়ন্তীতে উপস্থিত হয় লাখো মানুষ, জয়ন্তী উপলক্ষে ত্রিশালে বিরাজ করে উৎসব মুখর পরিবেশ।

কিন্তু এবার তার ব্যতিক্রম, গতকাল ছিলো জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের জন্মদিন, পাশাপাশি ছিলো ঈদ কিন্তু এবার ত্রিশালে পালন হয়নি নজরুল জয়ন্তী, করোনা ভাইরাসের আক্রমণে দেশের সব কিছু প্রায় স্তব্দ থাকায় স্তব্দ হয়ে উঠেছে এই জয়ন্তী , ত্রিশালের নজরুল প্রেমীদের জন্য যা ছিলো অদৃশ্য ভাইরাসের আঘাতে প্রাপ্ত এক অদৃশ্য দুঃখের কারন।

সুস্থ পৃথিবীর অপেক্ষায় থাকা বিশ্ববাসীর সাথে ত্রিশাল বাসীও অপেক্ষায় আছে দূর হবে করোনা প্রকোপ, করোনা ভয় মুক্ত দেশের সব কিছু স্বাভাবিক হলে আবার পালন হবে নজরুল জন্ম জয়ন্তী, আবারো ত্রিশালে ফিরবে উৎসব, নজরুল প্রেমীদের প্রেমে মুখরিত হবে নজরুল তীর্থ ত্রিশাল।