ত্রিশালে মনির হত্যার কঠিন বিচার চেয়েছেন মেয়র আনিছ

স্টাফ রিপোটারঃঃ ময়মনসিংহের ত্রিশাল পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা সাংবাদিক মাসুদের বড় ভাই রইছদ্দিন মাস্টারের ছেলে নিহত নিরুজ্জামান( ৪০)’র জানাযা নামাজে দাঁড়িয়ে অপরাধীদের কঠিন শাস্তি চেয়েছেন পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব এবিএম আনিছুজ্জামান আনিছ। ১০ আগস্ট সোমবার সন্ধ্যায় নিহত মনিরুজ্জামানের নিজ বাড়িতে তাঁর জানাযা নামাজের বক্তব্যে মেয়র এসব কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, দোষী ব্যক্তিরা যাতে সর্বোচ্চ শাস্তি পায় সে জন্য সবাইকে এক সাথে কাজ করতে হবে। পরে মেয়র আনিছুজ্জামান আনিছ নিহত ব্যক্তির প্রতি গভীর শোক প্রকাশ করে পরিবারের মনিরের পিতাসহ আহত সবার সুস্থতা কামনা করে শোকসম্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন।

জানাযা নামাজে মনিরের বিচার চেয়ে আরো বক্তব্য রাখেন ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নবী নেওয়াজ সরকার ও তাঁর পরিবারের লোকজন।

জানাযায়- গতকাল ৯ আগস্ট দিবালোকে তুচ্ছ এক ঘটনাকে কেন্দ্র করে মনিরুজ্জামান মনিরকে হত্যা করে মামলায় উল্লেখিত গ্রেফতার হওয়া দোষীরা। তাঁর পরিবারের মনিরের পিতাসহ আরো ৩ জনকে গুরতর আহত করলে তাদেরকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আর নিহত মনিরের লাশ ত্রিশাল থানা পুলিশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপালে পাঠালে ১০আগস্ট ময়না তদন্ত শেষে লাশ ফেরত আসলে সন্ধ্যায় মনিরের জানাযা শেষ হয়।

এ বিষয়ে ত্রিশাল থানা ওসি তদন্তের সাথে মুঠোফোন কথা বললে তিনি জানান, মনিরের স্ত্রী সালমা আক্তার বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন এবং এই মামলায় ৬জন আসামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানাযায় – মনির হত্যার খবর পেয়ে ত্রিশাল থানা পুলিশ অল্পসময়েই ছুটে আসেন এবং মনির লাশ দাফনের আগেই ৬জন আসামীকে গ্রেফতার করে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেন।