ত্রিশালের সার্চ ইঞ্জিন হয়ে হয়ে কাজ করছে ত্রিশাল হেল্পলাইন

শামিম ইশতিয়াক, ত্রিশাল প্রতিনিধিঃ সমাজসেবা এবং মানবিক দায়বদ্ধতা থেকে মানব মনে আবির্ভাব হয় সেচ্ছাসেবী মূলক কর্মকান্ড, যা থেকে প্রকাশ পায় দেশ, সমাজ নিয়ে ভাবনা ও তার কার্যকরী প্রতিফলন এবং একত্বতার এক অনন্য উদাহরন।

ময়মনসিংহের ত্রিশাল উপজেলার এক ঝাক তরুণ যুবকদের এমন দায়বদ্ধতা থেকে পথ চলা শুরু হয়েছে “ত্রিশাল হেল্পলাইন” নামে এক সেচ্ছাসেবী গ্রুপের।
জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের স্মৃতিবিজরিত এই উপজেলার বিভিন্ন সামাজিক, সেচ্ছাসেবী মূলক কর্মকান্ড পরিচালনা করাই হলো এই গ্রুপের মূল উদ্দেশ্য, এছাড়াও ফেইসবুকের মাধ্যমে ত্রিশাল উপজেলা কে পজিটিভলি দেশের সামনে উন্মুক্ত করা, ত্রিশাল নিয়ে বিভিন্ন ভাবনা শেয়ার করা, ত্রিশালের বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকান্ড, সুবিধা সমূহকে ফুটিয়ে তুলা, ত্রিশালের বিভিন্ন সমস্যা, অসঙ্গতি সহ মাদক, ইভটিজিং, জুয়া, ছিনতাই ইত্যাদির সমস্যা সমাধানে অগ্রণী ভূমিকা পালন করা হলো এই গ্রুপের কর্মসূচীর মাঝে অন্যতম।
এছাড়াও গ্রুপটি রক্তদান, বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ, যতৌুক প্রতিরোধ, ইভটিজারদের প্রতিরোধ মাদকদ্রব্য, মাদকসেবী ও মাদক ব্যাবসায়ীদের প্রতিরোধ করতে সাংগঠনিক ভাবে কাজ করছে।
ত্রিশাল হেল্পলাইন এর পথচলা নিয়ে কথা বললে গ্রুপের এক এডমিন খাইরুল ইসলাম বলেন ” গ্রুপটি একদিন ত্রিশালের জন্য আলোর মশাল হিসেবে কাজ করবে, আমরা ত্রিশালবাসীর পাশে থেকে সারাদেশের মাঝে ত্রিশাল উপজেলা কে এক অনন্য উপজেলা হিসেবে পরিচালনা করতে চাই “
আপাতত ফেইসবুক গ্রুপে পরিচালনা করলেও ভবিষ্যৎ ভাবনা নিয়ে ত্রিশাল হেল্প লাইনের এডমিন ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয় কুষ্টিয়ার শিক্ষার্থী শাকিল আহমেদ বলেন “গ্রুপটি শুধুমাত্র ফেইসবুকে সীমাবদ্ধ থাকবে এমনটা নয়, আমরা ত্রিশালে আমাদের কার্যালয় নিয়ে এক সুস্থ ত্রিশাল বিনির্মানে কাজ করব, আমাদের সেচ্ছাসেবী টিম গঠন হবে যারা ত্রিশালে আসা বহিরাগতদের সেবা দিবে, এছাড়াও নজরুল বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরিক্ষা, নজরুল জন্মজয়ন্তীতে, এবং বিভিন্ন চাকরির পরিক্ষা দিতে আসা বহিরাগতদের আমরা গাইডলাইন করব”
যেখানে যুবক জ্বলে সেখানে মিশাল নিভে গেলেও ক্ষতি নেই, কবির এমন আশাবানী হয়ে ত্রিশাল হেল্পলাইনের যাত্রা শুরু হওয়া যেনো সত্যিকারের এক ত্রিশাল বিনির্মানে অগ্রনী ভূমিকা পালন করবে বলে মনে করছেন ত্রিশালের অনেক সামাজিক সংগঠনের ব্যাক্তিবর্গ, ত্রিশালের প্রতিটি ইউনিয়ন নিয়ে এমন এক প্লাটফর্ম ভবিষ্যৎ ত্রিশালের জন্য জন্য উজ্জ্বল দ্যুতি ছড়াবে এমনি আশা বুনছেন ত্রিশাল হেল্পলাইনের তরুণ সেচ্ছাসেবকেরা।