ত্রিশালের একটি কলেজ এমপিওভূক্ত না হওয়ায় ১৬ শিক্ষকের মানবেতর জীবন।

ফজলে রশীদঃ ত্রিশাল উপজেলার কালির বাজার উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয় (স্কুল এন্ড কলেজ) দীর্ঘদিন পরেও এমপিওভুক্ত না হওয়ায় মানবেতর জীবন যাপন করে আসছে কলেজটির ষোল শিক্ষক।

জানা যায়, ২হাজার ১২ ইং সালে কলেজটির আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু হয় এবং ২ হাজর ১৩ ইং সালে কলেজটি একাডেমিক স্বীকৃতি লাভ করে। কিন্তু অদ্যবধি পর্যন্ত কলেজটি এমপিওভুক্ত না হওয়ায় ১৬ জন শিক্ষক মানবেতর জীবন যাপন করে আসছে। কলেজের অধ্যক্ষ আ,হা,ম শহিদ উল্লাহ জানান,ময়মনিসংহ কোতোয়ালী, ত্রিশাল, ঈশ্বরগঞ্জ, ও গৌরীপুর উপজেলার সীমান্তবর্তি ব্রহ্মপুত্র নদের বাঁকে অবস্থিত কালির বাজার উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয় (স্কুল এন্ড কলেজ)।

মধ্য আয়ের বা দারিদ্র সীমার নীচে বসবাসকারী পরিবারের শত শত ছাত্র-ছাত্রীদের দুরবর্তী নাজুক যোগাযোগ ব্যবস্থার কারণে উপজেলা শহরে অবস্থিত কলেজগুলোতে নিয়মিত ক্লাস করা দুরহ ছিল।

এ কলেজটি প্রতিষ্ঠার পর এলাকার ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে উচ্চশিক্ষালাভে বহুলাংশে আগ্রহ জন্মায় এবং ছাত্রীদের নিরাপত্তাকল্পে অভিভাবকদের মাঝেও স্বস্তি ফিরে আসে। কালির বাজার উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে উল্লেখিত উপজেলাগুলোর দুরত্ব ২০-২৫ কিলোমিটার দুরে থাকায় এলাকাবাসী ভাল রেজাল্টখ্যাত এ কলেজটি বিশেষ বিবেচনায় এমপিওভুক্তি করার দাবী জানিয়ে আসছে।