কঠিন সময়ে জনকল্যাণ মূলক বাজেট অভিনন্দন জানিয়েছেন মেয়র আনিছুজ্জামান

সারা বিশ্বে নোভেল করোনার পরিস্থিতিতে মানব সভ্যতায় হৃদয় স্পন্দন স্তব্ধ। বেঁচে থাকার লড়াঁই করে চলছেন দুনিয়ায় সারে সাত শত কোটি মানুষ। এ ক্রান্তিলগ্নে সকল শ্রেণীর মানুষ কর্মকে ত্যাগ যার যার অবস্থানে অপেক্ষায় বসে আছেন নোভেল করোনা প্রতিরোধের সু-খবর পাওয়ার। সারা বিশ্বে যখন এ অবস্থা এশিয়ার এই জনবহুল বাংলাদেশেও করোনার সংক্রমণ বিস্তার বৃদ্ধি পাওয়ায়, দেশের অর্থনীতির চাকাকে গতিশীল রাখার লক্ষ্যে জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এবারের বাজেট ভিন্ন বাস্তবতায়,মানুষের মৌলিক চাহিদা পূরণে ভিন্ন বৈশ্বিক প্রেক্ষাপটে তৈরি বলে মন্তব্য করেছেন ময়মনসিংহের ত্রিশাল উপজেলা আওয়ামীলীগের জনপ্রিয় জননেতা জননন্দিত দু’বারের সফল মেয়র আলহাজ্ব এবিএম আনিছুজ্জামান আনিছ।

১১জুন বৃহস্পতিবার বিকেলে বাজেট সম্পর্কে তাঁর সাথে প্রতিক্রিয়ায় জানতে চাইলে মেয়র বলেন, এ বাজেট করোনার বিদ্যমান সংকটকে সম্ভাবনায় রূপ দেয়ার বাস্তবসম্মত প্রত্যাশার স্বরণীয় ইতিহাস হয়ে থাকবে। মানুষের জীবনের পাশাপাশি জীবিকার চাকা সচল রাখতে শেখ হাসিনা সরকারের সাহসীক সময়োপযোগী চিন্তায় সোনালী ফসল এ বাজেট।

এ বাজেট সকল শ্রেণী-পেশা মানুষের জনকল্যাণময়, গণমুখী, জীবন ও জীবিকার বিষয়কে অগ্রাধিকার দেয়া হয়েছে। বিশ্বমানবতার মা বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা মহান স্বাধীনতা যুদ্ধের সর্বাধিনায়ক জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের রক্তের উত্তেশ্বরী মমতাময়ী প্রধান মন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা নেতৃত্বে করোনা মোকাবিলায় যে যুদ্ধ চলছে এই যুদ্ধে সোনার বাংলাদেশের মানুষ সবাই জয়ী হবো ইনশাআল্লাহ।

মেয়র আরো বলেন,যদিও বর্তমান সময়টি কঠিন, সামনে অনেক চ্যালেঞ্জ। করোনা মোকাবিলায় সরকার বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহনসহ এবারের বাজেট দিয়েছেন মানুষের জীবন ও জীবিকার বাজেট। বাজেটে কৃষি,স্বাস্থ্য ও শিক্ষাখাতে গবেষণা ও উন্নয়নে বরাদ্দ বৃদ্ধি করা হয়েছে। সামাজিক নিরাপত্তা বলয় আরো বৃদ্ধির লক্ষ্যে বাজেটে বরাদ্দ ও সুবিধাভোগীর সংখ্যা আকারও বাড়ানো হয়েছে। বৈশ্বিক সংকট উত্তরণে দেশের ব্যবসা-বাণিজ্য ও শিল্প প্রতিষ্ঠানকে বাঁচাতে নানা পদক্ষেপ নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

ফকরুদ্দীন
নির্বাহী সস্পাদক
দৈনিক পল্লীসংবাদ