একুশে পদক পেলেন পপ সম্রাট প্রয়াত আজম খান

আজম খান

ত্রিশাল প্রতিদিন ডেস্ক::জীবনের প্রতি পাতায় হয়তো আজম খান মহা কিছু লিখে যেতে পারেন নি।বেচে থেকে কাউকে বোঝাতে পারেন নি কি করে গেলেন বাংলার জন্য। বাংলাকে বোঝাতে মরন ছুয়েঁ গেল তাকে।বেচে থেকে যা পাবার কথা ছিল মরন তা বুঝিয়ে দিল। জীবদ্দশাতেই কত বার এই সম্মাননা প্রদানের জন্য জোর দাবি উঠেছিল সর্বস্তরের পক্ষ থেকে। কারণ, তিনি একাধারে ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা এবং বাংলাদেশের ব্যান্ড ও পপ গানের জনক। কিন্তু জীবিত অবস্থায় একুশে পদক তিনি পাননি। ২০১১ সালের ৫ জুন তাঁর মৃত্যুর পর ভক্তদের পক্ষ থেকে মরণোত্তর একুশে পদক দেওয়ার বিষয়ে জোর দাবি ওঠেছিল। তবে গত ৭ বছরে সেটি ঘটেনি।কারন মুক্তিযোদ্ধা এবং ব্যান্ড এক হয় না। কেন ব্যান্ড সঙ্গীত কি দেশের কথা বলে না।

 অনেকের মতে , ব্যান্ড ঘরানার শিল্পীরা সচরাচর এ ধরনের জাতীয় সম্মাননার জন্য নির্বাচিত হন না! তবে সেসব গুজব উড়িয়ে দিয়ে এবার সত্যি সত্যি একুশে পদকের মতো সম্মাননা যাচ্ছে আজম খানের ঘরে।

এই পুরস্কার প্রদানের ঘোষণার প্রতিক্রিয়া হিসেবে উচ্ছ্বসিত দেশের আরেক শীর্ষ পপ তারকা ফেরদৌস ওয়াহিদ। আজম খানের সঙ্গে দলবেঁধে সংগীতের লম্বা পথ পাড়ি দিয়েছেন তিনিও।‘খবরটি পেয়ে আমি ভয়ঙ্কর লেভেলের খুশি হয়েছি। আমাদের ফিরোজ সাঁইকে যখন দেওয়া হয়েছে, তখনও ভালো লেগেছে। সেটিও মরণোত্তর ছিল। তবে আজম খান এই পুরস্কারের যোগ্যতা অর্জন করেছেন বহু বছর আগেই। তিনি বেঁচে থাকতে এই সম্মাননা পাওয়া উচিত ছিল বলে আমি মনে করি।’