আমরা মোক্ষপুরের ১ নং ওয়ার্ডের মানুষ অবহেলিত কেনো ?

 

 খোলা চিঠি,

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা যেখানে বলেছেন গ্রাম হবে শহর এবং গ্রাম হচ্ছে শহর সেখানে এই যদি হয় গ্রামের রাস্তা তাহলে কিভাবে হবে শহর? সারা বাংলাদেশপ উন্নয়নের জোয়ারে বইছে সেখানে আমরা উন্নয়নবঞ্চিত কেনো?

সামনে জণগণের কাছে আমরা নেতাকর্মীরা কিভাবে ভোট চাইতে যাবো নৌকার পক্ষে? যেখানে সাধারণ জণগণ আমাদের চুখের সামনে জুতা হাতে নিয়ে হাঁটতেছে। আমন ধান রাস্তায় রোপন করা যাবে চাইলে এখনি কোনো হাল চাষ প্রয়োজন ছাড়াই। তাদেরকে ত অনেকে অনেক কথা বলেছেন ইলেকশনের সময় এই কাজ হবে ঐই কাজ হবে কেনো হচ্ছে না এখন কাজ? আমরা কেনো অবহেলিত, আমরা কি দোষ করেছি কি পাপ করেছি তার ফল আমাদের ভোগ করতে হচ্ছে! এই রাস্তাটি হচ্ছে আকিজ সিরামিকস এর বাউন্ডারির পূর্ব পাশ দিয়ে আবুল খায়ের মেম্বার বাড়ির সামনে দিয়ে ক্লাবের বাজার এবং জামতলী যাওয়ায় রাস্তা।

এই রাস্তা আমাদের ১ নং ওয়ার্ডের সবচেয়ে জনবহুলতম রাস্তা এই রাস্তা দিয়ে খাগাটির মানুষ, জামতলীর মানুষ ক্লাবের বাজারের মানুষ প্রতি দিন সকাল, দুপুর, রাত্রে কাজে, চাকুরী তে বাজারে যায়। একটু বৃষ্টি হলেই জুতা হাতে নিয়ে হাঁটতে হয় কোনো ভাবে ই জুতা পাঁয়ে দিয়ে হেটে যাওয়া সম্ভব হয়না। মাননীয় জননেত্রী উন্নয়নের রূপ মডেল শেখ হাসিনার মনোনিত ময়মনসিংহ ০৭ ত্রিশাল থানার মাননীয় MP মহোদয়ের এবং উপজেলা চেয়ারম্যান মহোদয়, ভাইস চেয়ারম্যান মহোদয় এবং আমাদের ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান মহোদয়ের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি এবং বিনীত অনুরোধ জানাচ্ছি ১ নং ওয়ার্ড বাসীর পক্ষ থেকে প্লিজ আপনারা বিষয় টি একটু দেখেন এবং আমাদের এই হাল চাষ করা রাস্তা থেকে মুক্তি দিন আমরা ১ নং ওয়ার্ড বাসী সারাজীবন আপনাদের কাছে কৃতজ্ঞ থাকবো।

আমরা নৌকার পক্ষে, জননেত্রী শেখ হাসিনার পক্ষে ভোট চাইতে পারবো জণগণের সামনে উন্নয়নের কথা বলতে পারবো রাস্তাটুকু হলে। আমাদের ১ নং ওয়ার্ডের ৮০ % মানুষের চলাচলের সুবিধা হবে তাদের কাছে ভোটের সময় আমরা বলতে পারবো এটা আমাদের আওয়ামী লীগের আমলের রাস্তা, বুক ফুলিয়ে বলতে পারবো এটা আমাদের জননেত্রী শেখ হাসিনার উপহার।