আন্তর্জাতিক ফুটবলে বাংলাদেশের চমক

অনলাইন ডেস্ক::দীর্ঘ পাঁচ মাস পরে আন্তর্জাতিক ফুটবল ম্যাচ খেলতে নেমেছিল বাংলাদেশ জাতীয় দল। সেই ফেরাটা হলো বেশ সুখকর। র‌্যাঙ্কিংয়ে ২০ ব্যবধানে এগিয়ে থাকা কম্বোডিয়াকে ১-০ গোলে হারিয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ। দলের একমাত্র গোলটি করেন বদলি হিসেবে নামা রবিউল হাসান। আন্তর্জাতিক অঙ্গনে বাংলাদেশের ফেরাটাও হলো দুর্দান্ত। একইসঙ্গে কম্বোডিয়ার বিপক্ষে অপরাজিত থাকার রেকর্ডও ধরে রাখলো বাংলাদেশ।

ফিফা প্রীতি ম্যাচের শুরু থেকেই শনিবার স্বাগতিক কম্বোডিয়ার চোখে চোখ রেখে খেলতে থাকে বাংলাদেশ। ম্যাচের প্রমার্ধের প্রথম ২০ মিনিট কৃত্রিম ঘাসের উপর বাংলাদেশের খেলোয়াড়রা নিজেদের খুঁজে পেতে সময় নেন। এরপরই নমপেনের জাতীয় অলিম্পিক স্টেডিয়ামে আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলতে শুরু করে বাংলাদেশ। কিন্তু গোলের দেখা পাচ্ছিল না কিছুতেই। খেলা এগিয়ে যাচ্ছিল ড্রয়ের দিকে।

বিরতির পর ম্যাচের ৫০তম মিনিটে মনিত মিয়া গোলবারের বামদিক থেকে দারুণ ক্রস ঠেলে দেন। কিন্তু, কোনো সতীর্থ বলের নাগাল পাননি। একটা টোকাতেই কম্বোডিয়ার জালে বল জড়াতে পারেনি কেউ। ৫৫ মিনিটের মাথায় তপু বর্মনের দূরপাল্লার জোরালো শট ঝাপিয়ে পড়ে রুখে দেন কম্বোডিয়ার গোলরক্ষক। ৫৮ মিনিটে কম্বোডিয়ার আক্রমণে বাংলাদেশের ডি-বক্সে জটলা বাধে। ডিফেন্ডারদের ফাঁকি দিয়ে বলও বেরিয়ে যায়। কিন্তু আতিথ্য নেওয়া বাংলাদেশের কপাল ভালো বলটি গোলরক্ষক সোহেল রানার গ্লাভসে না জমলেও জালের বাইরে চলে যায়।

৬৪ মিনিটের মাথায় বাংলাদেশের কোচ জেমি ডে বিপলু আহমেদকে তুলে নিয়ে মাঠে নামান রবিউল হাসানকে। ৭৭ মিনিটের মাথায় কর্নার থেকে উড়ে আসা বলে কেউ ফিনিশিং টাচ দিতে না পারলে গোলের দেখা পায়নি বাংলাদেশ। এ সময় ডাগআউটে বেশ উত্তেজিত হয়ে পড়েন বাংলাদেশের ইংলিশ কোচ জেমি ডে।

অবশেষে ৮৩ মিনিটে বহু আকাঙ্ক্ষিত গোলের জন্ম। ফরোয়ার্ড মাহবুবুর রহমান সুফিলের কাট ব্যাকে প্লেসিং করে গোলটি করেছেন মিডফিল্ডার রবিউল হাসান।

ম্যাচের বাকি সময়ে স্বাগতিক কম্বোডিয়া গোল শোধ করতে পারেনি। ফলে এই স্কোরেই জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে বাংলাদেশ। মুখোমুখি চতুর্থ দেখায় তৃতীয় জয় নিয়ে মাঠ ছাড়লো লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা। এর আগে ২০০৯ সালে আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে বাংলাদেশ ১-০ গোলে জিতেছিল। তার আগে ২০০৭ সালে বাংলাদেশের বিপক্ষে ১-১ গোলে ড্র করেছিল কম্বোডিয়া। আর ২০০৬ সালে এএফসি চ্যালেঞ্জ কাপে বাংলাদেশ ২-১ গোলে হারিয়েছিল কম্বোডিয়াকে।